একই রক্ত মাংস, তবু নিয়ম ভিন্ন কেন?

রবিবার, নভেম্বর ১২, ২০১৭ ৭:১৯ PM | বিভাগ : প্রতিক্রিয়া


এ বছরের শুরুতে ম্যাক্সসিম এর একটা কভার ফটো নিয়ে প্রচুর আলোচনা সামালোচনা হয়েছে। সেখানে প্রিয়ঙ্কা চোরপার হাত উঁচু করা ছবিতে বগল ফটোশপ করে মসৃণ দেখানো হয়েছে। তখন থেকেই কিছু প্রশ্ন আমাকে বেশ খোঁচাচ্ছে। কেনো নারীর বগল কুৎসিত? কেনোই বা একে ফটোশপ করে মসৃণ আর সাদা বানিয়ে উপস্থাপন করতে হবে?

গাল ভর্তি দাড়ি রাখা যদি কুৎসিত না হয়, তবে বগলের পশম কেনো কুৎসিত হবে? ছেলেদের হাত উঁচু করে বগল দেখানো যদি পৌরষ দীপ্ত পুরুষের প্রকাশ হয়, তবে নারীর বগল কেনো নারী সৌন্দর্যের প্রতীক হবে না? কেনো তাকে নিয়মিত লুকিয়ে রাখতে হবে?

নারীর জন্য যেটা কুৎসিত সেটা পুরুষের জন্য স্বাভাবিক কেনো ?

তর্কের খাতিরে যদি ধরেও নেই ঘামের ব্যাকটেরিয়া শরীরের জন্য ক্ষতিকর তাই বগলের পশম কেটে ফেলা ভালো তাহলে প্রশ্ন হলো পুরুষের বগল এর পশম কি এই একই যুক্তির মধ্যে পরে না? নারীর জন্য যেটা কুৎসিত সেটা পুরুষের জন্য স্বাভাবিক কেনো? আচ্ছা নারীর বগল তো যৌনাঙ্গ না যে দেখলেই পুরুষ দণ্ডে আঘাত লাগবে। তবে মেয়েদের হাতা কাটা পোশাকে সমস্যা কই? ছেলে যে হাতা কাটা গেঞ্জি পরে, সেটা কেনো মেয়েদের জন্য নিষিদ্ধ হবে?

নিয়ম নীতি মানুষ বানায়, অবশ্য ঠিক মানুষ না , নিয়ম বানায় পুরুষতান্ত্রিক মানুষেরা।

আমাদের সামাজিক ব্যবস্থা ...নিয়মই নীতি ...অমুক সমুক.... এসব বলে বিষয়টা কে এড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ নেই। মানুষ ই সমাজ তৈরি করে, কোনো অলৌকিক উপায়ে এই সব সামাজিক প্রথা আসেনি। নিয়ম নীতি মানুষ বানায়, অবশ্য ঠিক মানুষ ন, নিয়ম বানায় পুরুষতান্ত্রিক মানুষেরা। তাই প্রশ্নগুলো আসলে তাদের কাছে যারা এই নিয়ম বানিয়েছে।

নারীর স্বর কি কুৎসিত নাকি সেটা নিষিদ্ধ কিছু

মুখে সমতার বুলি জপা সমাজপতিরা যখন বলে নারীদের একটু নরম থাকতে হয়, তাদের নারী সুলভ আচরনই সুন্দর, সেখানে প্রশ্ন আসে, কোনটা নারী সুলভ আচরণ? তার মান দণ্ড কি? কোনটা সহি নারী সুলভ আচরণ, সেটা আসলে কিভাবে বোঝা যায়? নারীরা আস্তে কথা বলবে, প্রশ্ন হল কেনো? মানে নারীর স্বর কি কুৎসিত নাকি সেটা নিষিদ্ধ কিছু?

নারীরা হাত তুলবে না, নারীরা কিল খেয়ে চুপ থাকবে, বাপ ভাই কে বলবে, আমাকে বাঁচাও! কারণ মারামারি পুরুষের কাজ। প্রশ্ন হলো কেনো? নারীরা কি বিপদে পরে না? তারা কেনো আত্মরক্ষার দায় কোনো পুরুষের উপড়ে চাপাবে? তারা কেনো নিজের প্রটেকশনের জন্য আত্মরক্ষার কৌশল শিখবে না? কেনো কিল খেয়ে পাটকেল মারবে না?

নারী দুর্বল বলারা যে বলদ গোত্রীয়, সেটা নিশ্চয়ই আর প্রমাণ করতে হবে না? জাস্ট রেসলার মেয়েদের উদাহরণ টানলেই হয় কিংবা আমাদের লায়লা আলীর নামটা নিশ্চই আজানা না

নারী মানে একটা যৌন পুতুল! এই ধারনা কারা তৈরি করেছে? একই রক্ত মাংসের শরীর এর দুটো মানুষ, পুরুষ ও নারী, অথচ দুজনের জন্য নিয়ম কেনো ভিন্ন হবে?


  • ২৩৮৩ বার পড়া হয়েছে

পূর্ববর্তী লেখা পরবর্তী লেখা

বিঃদ্রঃ নারী'তে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার বিষয়বস্তু, ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া ও মন্তব্যসমুহ সম্পূর্ণ লেখকের নিজস্ব। প্রকাশিত সকল লেখার বিষয়বস্তু ও মতামত নারী'র সম্পাদকীয় নীতির সাথে সম্পুর্নভাবে মিলে যাবে এমন নয়। লেখকের কোনো লেখার বিষয়বস্তু বা বক্তব্যের যথার্থতার আইনগত বা অন্যকোনো দায় নারী কর্তৃপক্ষ বহন করতে বাধ্য নয়। নারীতে প্রকাশিত কোনো লেখা বিনা অনুমতিতে অন্য কোথাও প্রকাশ কপিরাইট আইনের লংঘন বলে গণ্য হবে।


মন্তব্য টি

ফেসবুকে আমরা