এখন যুদ্ধটা হবে অপুর একার

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৭ ৩:৫০ AM | বিভাগ : প্রতিক্রিয়া


বাংলাদেশে কি এর আগে কোনো তারকা দম্পতির বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি? হয়েছে, তবে কেনো শাকিব অপুর বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে এতো হাঙ্গামা? শাকিব আর অপু সংসার করবে নাকি আলাদা হয়ে যাবে, এটা তাদের ব্যক্তিগত বিষয়; এ বিষয়ে আমার কিছু বলার নেই; কিন্তু বিষয় হলো শাকিব যে সকল নোংরা বিষয় অপুর বিরুদ্ধে আনছে এবং অপু বিশ্বাস এই সকল নোংরা ভাষা এবং কাজের জবাবে কি করবে?

সংসার বিষয়টা ভালোবাসা, শ্রদ্ধা, সম্মান এবং বিশ্বাসের বিষয় তারপর হলো ভালোবাসা; জোর করে এগুলো কোনো দিনই আদায় করা সম্ভব না! তাই বোধ সম্পন্ন দু’জন মানুষের পক্ষে দেনদরবার বা জোর পুর্বক কোনো সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়; শাকিব খান যে বাধ্য হয়েছিলো অপু এবং বাচ্চাকে স্বীকৃতি দিতে কেবলমাত্র নিজের ইমেজ ধরে রাখার জন্য সেটাতো বোঝাই গেছে, যখন শাকিব তার বক্তব্যগুলো দিয়েছিলো মিডিয়াতে। ফ্রম দি ভেরি বিগিনিং, শাকিব সবসময়ই অপুর বিষয়টাকে অর্থ দিয়ে হ্যান্ডেল করতে চেয়েছে। শাকিবের মতো অশিক্ষিত লোক সব কিছু অর্থ দিয়ে বিচার করতে চায়, সেই লোককে নিয়ে আর কি বলার থাকতে পারে? 

তালাকের কারণ হিসেবে নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে- অপু বিশ্বাস শাকিবের পছন্দের সীমার মধ্যে থাকেন নি। সম্প্রতি তাদের সন্তানকে গৃহপরিচারিকার কাছে রেখে দেশের বাইরে যান অপু--- সমকাল। 
শাকিবের পছন্দের সীমারেখাটা কি? ২০০৮ সালে বিয়ের পর থেকে মুখ বুজে ছিলো, এখন সেটা কেনো কনটিনিউ করলো না, এটা খারাপ লেগেছে? যে বাবা তার সন্তানকে নিজের ক্যারিয়ারের কারণে জনসম্মুখে আনে না সে বাপের এখনকার এতো মায়াকান্না যে কেবল অপুকে তালাক দেবার জন্য সেটা ভালোই বোঝা যাচ্ছে। শাকিব বেঁচে গেছে এই কারণে যে বাচ্চা শাকিবের গর্ভে হয়নি, আর অপুর সমস্যা হলো অপুকে বাচ্চা পেটে ধরতে হয়েছে। নারীর যে গর্ভ এ পৃথিবীর সকল মানুষের পৃথিবীতে আসার একমাত্র পথ, যে গর্ভে এই পুরুষেরও জন্ম, সেই গর্ভের স্বীকৃতিও আবার পুরুষের থেকেই নিতে হয়!! 

যে বাবা তার সন্তানকে আড়াল করে রাখে নিজের ক্যারিয়ারের জন্য, যে বাবার কাছ থেকে স্বীকৃতি নিতে ৬ মাস বয়স হবার পর মাকে দ্বারস্থ হতে হয় গণমাধ্যমের, সে বাবার তার সন্তানের জন্য এই মাছের মায়ের মরা কান্না দেখে সত্যিই হাসি পাচ্ছে! অপুতো বেঁচে গেছে টিভি মিডিয়াতে বাচ্চা নিয়ে উপস্থিত হয়ে, এটলিস্ট বাচ্চাটার পিতা কে সেটা স্বীকৃতি দিতে বাধ্য হয়েছে, আদারওয়াইজ শাকিব তো কোনোদিন এই বাচ্চার বৈধতাই দিতো না! আসলে বাপ-মায়ের সম্পর্ক অবৈধ হয়, জন্ম নেয়া শিশুটি নয়! 
বাজারে অপুর চেয়ে শাকিবের বাজার ভারী, তাই চলচ্চিত্র জগত শাকিবের পক্ষেই সাফাই গাইবে, আর এখন যেখানে আইনী পক্রিয়ায় তালাকের নোটিশ চলে গেছে সেখানে এখন মধ্যপন্থীরা সমঝোতার চেষ্টা করলে কতটুকু কাজে আসবে সেটা দেখার বিষয়। এখন আমি দেখতে চাই অপু এটাকে কিভাবে হিসাব করে? এখানে এই যুদ্ধ কেবলই আইনী যুদ্ধ হবে এবং এটি অপুর একারই যুদ্ধ হবে, মিডিয়া থাকবে কারণ মিডিয়ার খবর দরকার প্রচারের জন্য!


  • ২২১০ বার পড়া হয়েছে

পূর্ববর্তী লেখা পরবর্তী লেখা

বিঃদ্রঃ নারী'তে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার বিষয়বস্তু, ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া ও মন্তব্যসমুহ সম্পূর্ণ লেখকের নিজস্ব। প্রকাশিত সকল লেখার বিষয়বস্তু ও মতামত নারী'র সম্পাদকীয় নীতির সাথে সম্পুর্নভাবে মিলে যাবে এমন নয়। লেখকের কোনো লেখার বিষয়বস্তু বা বক্তব্যের যথার্থতার আইনগত বা অন্যকোনো দায় নারী কর্তৃপক্ষ বহন করতে বাধ্য নয়। নারীতে প্রকাশিত কোনো লেখা বিনা অনুমতিতে অন্য কোথাও প্রকাশ কপিরাইট আইনের লংঘন বলে গণ্য হবে।


মন্তব্য টি

লেখক পরিচিতি

ফাহরিয়া ফেরদৌস

এডভোকেট , বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট।

ফেসবুকে আমরা